রাত ১:৪২ | শুক্রবার | ৩১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহে বাধঁ সংস্কার কাজ শুরু, ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সহায়তা প্রয়োজন

বিল্লাল হোসেন প্রান্তঃ

ময়মনসিংহের চরাঞ্চল জেলখানর চরে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পেয়ে তীব্র স্রোতে ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধ পূনঃসংস্কার কাজ শুরু হয়ে গেছে। তবে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামবাসীর জন্য একনও ত্রান সহায়তা আসেনি।

 

 

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকাল থেকে ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ড বাঁধ পুনঃসংস্কার সামগ্রি নিয়ে কাজ শুরু করেছে।

 

ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ জহুরুল ইসলাম জানান, জরুরী টেন্ডারে বাঁধ সংস্কারে কাজ চলছে। ৪ হাজার ২৫০ কেজি জিও ব্যাগ প্রাথমিকভাবে বাঁধে ফেলা হচ্ছে। এক্ষেত্রে সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধি, সদর উপজেলা অফিসের প্রতিনিধিরা রয়েছেন কার্যক্রমের সাথে।

ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কে এম শফিকুল হক বলেন, এই বাঁধটি ২৩ কিলোমিটার। এর ৩০ মিটার বন্যার পানির তোরে ভেঙ্গে যায়। জরুরী ভিত্তিতে আমরা বাধটি সংস্কারে কাজ করছি।

 

 

বাধঁ ভেঙে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করায় তলিয়ে গেছে সদর উপজেলার চর জেলাখানা, চর গোবিন্দপুর, দূর্গাপুর, বারেরচর, চরসিরতা এলাকার কয়েক’শ ঘরবাড়ি, ফসলি জমি, আমন ধানের বীজতলা ও কয়েকটি মাছের খামার। ঝুঁকিতে রয়েছে আরও বেশ কয়েকটি গ্রাম।

বাধঁ ভেঙ্গে বন্যার পানি ঢুকে পড়ায় আতঙ্কে রয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার কয়েক হাজার মানুষ। ঘরবাড়ি ছেড়ে খোলা আকাশের নিচে বাধেঁর উপর আশ্রয় নিয়েছে অসংখ্য পরিবার।

 

 

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসীর জানান, সরকার বাঁধটি দ্রুত সংস্কারে পদক্ষেপ নিয়েছে এ জন্য আমরা খুশি। তবে এখানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য ত্রানসহ সহায়তা সামগ্রী প্রয়োজন।

বাঁধ ভেঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত জেলখানা চরের আসাদ মিয়া জানান, আমাদের বাড়িঘর পানিতে তলিয়ে গেছে। পরিবার নিয়ে বাঁধে আশ্রয় নিয়েছি। এখন কাজ কর্মেও যেতে পারছিনা। খাবারে কষ্টে আছি।

তিনি জানান, কারা যেন নাম ঠিকানা লিখে নিয়ে গেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন সহায়তা পায়নি।

 

এলাকাবাসী জানান, বাধঁ সংস্কার হয়ে গেলে পানি হয়তো আর ঢুকবে না। তবে ঢুকে যাওয়া পানি বেড়িয়ে যাওয়া ব্যবস্থা না করলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলো দীর্ঘ সময় পর্যন্ত পানি বন্দি থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» নাসিরাবাদ কলেজ গর্ভনিং বডির কমিটি বহাল রেখেছে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ

» দ্বিতীয় দফায় এমপি মোহিত উর রহমানের ফ্রি চক্ষু সেবা

» প্রয়াত মতিউর রহমানের স্নেহধন্য আবু সাঈদ জনতার ভালোবাসা

» অস্ত্র মামলায় কাউন্সিলর নোমানের ১০ বছর কারাদণ্ড

» আমি বাংলাদেশের সবচাইতে অজনপ্রিয় সাংসদ হবো- মোহিত উর রহমান শান্ত

» ময়মনসিংহ ডিবির অভিযানে ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

» তাপদাহ প্রশমনে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের উদ্যোগে পানি-জুস-সেলাইন বিতরণ

» এমপি মোহিত উর রহমানের সহায়তায় ১১০ জনের চোখের ছানি অপারেশন সম্পন্ন

» উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আশরাফ-সাঈদ প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস, ১৪ জন বৈধ ঘোষিত

» আগামীকাল ময়মনসিংহ মেতে উঠবে স্বাধীনতা কনসার্টে

» ভাষা শহীদদের প্রতি সংসদ সদস্য মোহিত উর রহমান শান্তর শ্রদ্ধাঞ্জলী

» ১৪৭ বেকার তরুণ তরুণীকে চাকুরির প্রস্তুতি কর্মশালা করালেন এমপি মোহিত উর রহমান শান্ত

» হালুয়াঘাট-ধোবাউড়ায় ৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ বৃদ্ধি ; কৃষি সেচে গুরুত্ব এমপির

» ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আলোচনায় আবু সাঈদ

» সংবর্ধনা বাতিল করে শীতার্তদের মাঝে এমপি মোহিত উর রহমানের কম্বল বিতরণ

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com

,

basic-bank

ময়মনসিংহে বাধঁ সংস্কার কাজ শুরু, ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সহায়তা প্রয়োজন

বিল্লাল হোসেন প্রান্তঃ

ময়মনসিংহের চরাঞ্চল জেলখানর চরে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পেয়ে তীব্র স্রোতে ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধ পূনঃসংস্কার কাজ শুরু হয়ে গেছে। তবে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামবাসীর জন্য একনও ত্রান সহায়তা আসেনি।

 

 

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকাল থেকে ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ড বাঁধ পুনঃসংস্কার সামগ্রি নিয়ে কাজ শুরু করেছে।

 

ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ জহুরুল ইসলাম জানান, জরুরী টেন্ডারে বাঁধ সংস্কারে কাজ চলছে। ৪ হাজার ২৫০ কেজি জিও ব্যাগ প্রাথমিকভাবে বাঁধে ফেলা হচ্ছে। এক্ষেত্রে সিটি করপোরেশনের প্রতিনিধি, সদর উপজেলা অফিসের প্রতিনিধিরা রয়েছেন কার্যক্রমের সাথে।

ময়মনসিংহ পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কে এম শফিকুল হক বলেন, এই বাঁধটি ২৩ কিলোমিটার। এর ৩০ মিটার বন্যার পানির তোরে ভেঙ্গে যায়। জরুরী ভিত্তিতে আমরা বাধটি সংস্কারে কাজ করছি।

 

 

বাধঁ ভেঙে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করায় তলিয়ে গেছে সদর উপজেলার চর জেলাখানা, চর গোবিন্দপুর, দূর্গাপুর, বারেরচর, চরসিরতা এলাকার কয়েক’শ ঘরবাড়ি, ফসলি জমি, আমন ধানের বীজতলা ও কয়েকটি মাছের খামার। ঝুঁকিতে রয়েছে আরও বেশ কয়েকটি গ্রাম।

বাধঁ ভেঙ্গে বন্যার পানি ঢুকে পড়ায় আতঙ্কে রয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার কয়েক হাজার মানুষ। ঘরবাড়ি ছেড়ে খোলা আকাশের নিচে বাধেঁর উপর আশ্রয় নিয়েছে অসংখ্য পরিবার।

 

 

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসীর জানান, সরকার বাঁধটি দ্রুত সংস্কারে পদক্ষেপ নিয়েছে এ জন্য আমরা খুশি। তবে এখানে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য ত্রানসহ সহায়তা সামগ্রী প্রয়োজন।

বাঁধ ভেঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত জেলখানা চরের আসাদ মিয়া জানান, আমাদের বাড়িঘর পানিতে তলিয়ে গেছে। পরিবার নিয়ে বাঁধে আশ্রয় নিয়েছি। এখন কাজ কর্মেও যেতে পারছিনা। খাবারে কষ্টে আছি।

তিনি জানান, কারা যেন নাম ঠিকানা লিখে নিয়ে গেছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন সহায়তা পায়নি।

 

এলাকাবাসী জানান, বাধঁ সংস্কার হয়ে গেলে পানি হয়তো আর ঢুকবে না। তবে ঢুকে যাওয়া পানি বেড়িয়ে যাওয়া ব্যবস্থা না করলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলো দীর্ঘ সময় পর্যন্ত পানি বন্দি থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com