ভোর ৫:৩৩ | শনিবার | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অনন্য সাফল্যধারা ॥ ফুটবল কন্যাদের হ্যাট্রিক চ্যাম্পিয়নশিপ

জনমত ডেক্স ॥
আনন্দ আর আনন্দ। আবার চ্যাম্পিয়ান। আবার ময়মনসিংহ। এবার নিয়ে হ্যাট্রিক চ্যাম্পিয়নশিপ। এক অনন্য রেকর্ড। ফুটবল কাব্যে সাফল্য গাঁথা। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম থেকে শুক্রবাসরীয় সুসংবাদ। জয়ের ঐহিহ্যে অপ্রতিদ্বন্দ্বী ফুটবল কন্যারা। এ আনন্দধারায় সাক্ষী থাকলেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।
জেএফএ কাপ অনুর্ধ্ব ১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবলের শিরোপা এবারও কলসিন্দুর কন্যা খ্যাত ময়মনসিংহের মেয়েদের। এবার ধোবাউড়ার সাথে নান্দাইলের মেয়েরাও রয়েছে এই কৃতিত্বের ভাগীদার।


৩-০ গোলে ফাইনাল ম্যাচে অর্জিত চ্যাম্পিয়ান ট্রফিটা উৎসর্গ হলো সাবিনার স্মৃতির প্রতি। ফুটবল বিস্ময় কলসিন্দুরের মেয়ের এই দিনে সাবিনাকে স্মরণ করেছে তার উত্তসূরী সতীর্থরা। ফাইনালে ঠাকুরগাঁয়ের রাঙাটুঙ্গির মেয়েরা রানার্স আপ হয়েছে।
ময়মনসিংহ ভাল করবে এটা যেন জানাই ছিল। তাই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মেয়েদের উৎসাহ দিতে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহের মাটি ও মানুষের নেতা ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। চ্যাম্পিয়ানদের সাফল্যে উচ্ছ্বাসিত হয়েছেন। ছবি তুলেছেন।
ফুটবলে ময়মনসিংহের বিজয় গর্বে উদ্বেলিত, উচ্ছ্বাসিত ফুটবল কন্যাদের অভিনন্দন জানাতে স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন মোহিত উর রহমান শান্ত। বিসিবির সদস্য, ক্রীড়া সংগঠক, ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক তিনি। ময়মনসিংহের সাফল্যখচিত আনন্দদিনে এই ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন তাদের সাথে।
উপস্থিত ছিলেন গফরগাঁয়ের এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল। জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, কোচ সালাউদ্দিন সহ অনেকেই।
চ্যাম্পিয়ান দলের অধিনায়ক ইয়াসমিন গর্বিত। তিনি বলেছেন-‘ সাবিনার জন্যই ফাইনালটা জিততে চাই।’ সাবিনার জন্যই জিতেছেন তারা। লক্ষ্য অর্জনে অব্যর্থ তারা। শুরু হলো নতুন অধ্যায়।


অনৃর্ধ্ব ১৫ দলের ক্যাম্পে থাকা ময়মনসিংহের ফুটবলার সানজিদা, মর্জিয়া, তহুরা, তাসলিমারা গ্যালারিতে বসে খেলা দেখেছেন। দেখেছেন সাফল্যের ধারাবাহিকতা। দেখেছেন সর্বচ্চো গোলদাতা রোজিনার কারিশ্মা। এবার সময় রোজিনাদের। রোজিনা ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৪ টি গোল করেছেন। আর সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন শামসুন্নাহার। সেরা স্ট্রাইকার সালমা। এরা ময়মনসিংহের কিশোরী। আলোচনায় রোজিনা। চূড়ান্ত পর্বের মাত্র ৩ ম্যাচে খেলেছেন ১৪ টি গোল করে জিতেছেন সর্বোচ্চ গোলকরার ট্রফি। জেএসসি পরীক্ষার জন্য গ্রুপ পর্ব ও সেমিফাইনাল খেলা হয়নি।
গত ২ বছরে বঙ্গমাতা স্কুল ফুটবলে কলসিন্দুরের হয়ে সেরা খেলোয়াড় ও সর্বেচ্চ গোলদাতা হয় রোজিনা। তার বাবা ঢাকায় পিকআপ চালান। মেয়ের খেলা দেখোর সুযোগ তার হয়নি। ট্রফি জিতে রোজিনারও মন খারাপ হলো বাবার জন্য। ঢাকায় থেকেও খেলা দেখতে পারলেন না।


কিশোরীদের ফুটবলে হ্যাটটিক চ্যাম্পিয়ান ময়মনসিংহ। জাতীয় এবং বিশ্ব ফুটবলেও উজ্বল সাফল্য। ফুটবলের এই মেধাবী প্রজন্ম আলোকিত করেছে সীমান্তবর্তী ধোবাউড়া উপজেলার নেতাই নদের উপকণ্ঠের গ্রাম কলসিন্দুরকে। কলসিন্দুর এখন বিখ্যাত। দেশের মহিলা ফুটবলের সাফল্য এই গ্রামের আনন্দ অবদান। দেশের গন্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও এই কিশোরীরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সাফল্যের গৌরব বয়ে এনেছেন।
বয়স ভিত্তিক দলের এই মেধাবীরা একদিন জাতীয় দলে খেলবে। মহিলা ফুটবলের ভবিষ্যৎ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানরা কৈশোরেই বিপ্লব ঘটিয়েছে।
কলসিন্দুরের ১৫ আর নান্দাইলের ৩ ফুটবলার এর দুর্দান্ত পারফমেন্স ময়মনসিংহের ক্রীড়াঙ্গনে আনন্দধারা বইয়ে দিয়েছে। অভিনন্দন-ফুটবল কন্যাদের।
আশিক চৌধুরী॥

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» ময়মনসিংহে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের প্রতিবাদ সমাবেশ, মানববন্ধন

» ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশায় ত্যাগী নেতাদের নিয়ে সমালোচনার প্রতিযোগীতা

» পরাণগঞ্জে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ

» কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আগস্ট আলোচনা সভায় ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ

» দলীয় সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে সম্মেলন;একান্ত স্বাক্ষাৎকারে-সাংঠনিক সম্পাদক নাদেল

» সংগ্রাম ছাড়া, রাজপথ ছাড়া নেতা হওয়া যায়না,চক্রান্ত করা যায়- ইউসুফ খান পাঠান

» ময়মনসিংহে দোকানকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ককটেল চার্জ ৩১ আটক

» ময়মনসিংহে ফের ৮জনের মৃত্যু; মানুষ খেকো মহাসড়ক ১৪ দিনে কেড়ে নিলো ২২ প্রাণ

» ময়মনসিংহের সড়কে মৃত্যুর মিছিল! ১০ দিনের ব্যবধানে ঝরে গেল ১৫ তাজা প্রাণ

» ধোবাউড়ায় গৃহবধূর মৃত্যু; আত্মহত্যা না হত্যা তা নিয়ে ধুম্রজাল!

» ময়মনসিংহে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৭

» তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের নামে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

» এ্যাপ মিউজিকে গান গেয়ে সাড়া ফেলছে সাংবাদিক আওলাদ রুবেল

» ময়মনসিংহ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কার্যক্রম স্থগিত; কারণ দর্শানর নোটিশ

» সাবেক ধর্মমন্ত্রীর সাথে তথ্যপ্রতিমন্ত্রীর সৌজন্য স্বাক্ষাৎ

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com

,

basic-bank

অনন্য সাফল্যধারা ॥ ফুটবল কন্যাদের হ্যাট্রিক চ্যাম্পিয়নশিপ

জনমত ডেক্স ॥
আনন্দ আর আনন্দ। আবার চ্যাম্পিয়ান। আবার ময়মনসিংহ। এবার নিয়ে হ্যাট্রিক চ্যাম্পিয়নশিপ। এক অনন্য রেকর্ড। ফুটবল কাব্যে সাফল্য গাঁথা। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম থেকে শুক্রবাসরীয় সুসংবাদ। জয়ের ঐহিহ্যে অপ্রতিদ্বন্দ্বী ফুটবল কন্যারা। এ আনন্দধারায় সাক্ষী থাকলেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান।
জেএফএ কাপ অনুর্ধ্ব ১৪ জাতীয় মহিলা ফুটবলের শিরোপা এবারও কলসিন্দুর কন্যা খ্যাত ময়মনসিংহের মেয়েদের। এবার ধোবাউড়ার সাথে নান্দাইলের মেয়েরাও রয়েছে এই কৃতিত্বের ভাগীদার।


৩-০ গোলে ফাইনাল ম্যাচে অর্জিত চ্যাম্পিয়ান ট্রফিটা উৎসর্গ হলো সাবিনার স্মৃতির প্রতি। ফুটবল বিস্ময় কলসিন্দুরের মেয়ের এই দিনে সাবিনাকে স্মরণ করেছে তার উত্তসূরী সতীর্থরা। ফাইনালে ঠাকুরগাঁয়ের রাঙাটুঙ্গির মেয়েরা রানার্স আপ হয়েছে।
ময়মনসিংহ ভাল করবে এটা যেন জানাই ছিল। তাই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে মেয়েদের উৎসাহ দিতে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহের মাটি ও মানুষের নেতা ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। চ্যাম্পিয়ানদের সাফল্যে উচ্ছ্বাসিত হয়েছেন। ছবি তুলেছেন।
ফুটবলে ময়মনসিংহের বিজয় গর্বে উদ্বেলিত, উচ্ছ্বাসিত ফুটবল কন্যাদের অভিনন্দন জানাতে স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন মোহিত উর রহমান শান্ত। বিসিবির সদস্য, ক্রীড়া সংগঠক, ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক তিনি। ময়মনসিংহের সাফল্যখচিত আনন্দদিনে এই ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন তাদের সাথে।
উপস্থিত ছিলেন গফরগাঁয়ের এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল। জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, কোচ সালাউদ্দিন সহ অনেকেই।
চ্যাম্পিয়ান দলের অধিনায়ক ইয়াসমিন গর্বিত। তিনি বলেছেন-‘ সাবিনার জন্যই ফাইনালটা জিততে চাই।’ সাবিনার জন্যই জিতেছেন তারা। লক্ষ্য অর্জনে অব্যর্থ তারা। শুরু হলো নতুন অধ্যায়।


অনৃর্ধ্ব ১৫ দলের ক্যাম্পে থাকা ময়মনসিংহের ফুটবলার সানজিদা, মর্জিয়া, তহুরা, তাসলিমারা গ্যালারিতে বসে খেলা দেখেছেন। দেখেছেন সাফল্যের ধারাবাহিকতা। দেখেছেন সর্বচ্চো গোলদাতা রোজিনার কারিশ্মা। এবার সময় রোজিনাদের। রোজিনা ম্যাচে সর্বোচ্চ ১৪ টি গোল করেছেন। আর সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন শামসুন্নাহার। সেরা স্ট্রাইকার সালমা। এরা ময়মনসিংহের কিশোরী। আলোচনায় রোজিনা। চূড়ান্ত পর্বের মাত্র ৩ ম্যাচে খেলেছেন ১৪ টি গোল করে জিতেছেন সর্বোচ্চ গোলকরার ট্রফি। জেএসসি পরীক্ষার জন্য গ্রুপ পর্ব ও সেমিফাইনাল খেলা হয়নি।
গত ২ বছরে বঙ্গমাতা স্কুল ফুটবলে কলসিন্দুরের হয়ে সেরা খেলোয়াড় ও সর্বেচ্চ গোলদাতা হয় রোজিনা। তার বাবা ঢাকায় পিকআপ চালান। মেয়ের খেলা দেখোর সুযোগ তার হয়নি। ট্রফি জিতে রোজিনারও মন খারাপ হলো বাবার জন্য। ঢাকায় থেকেও খেলা দেখতে পারলেন না।


কিশোরীদের ফুটবলে হ্যাটটিক চ্যাম্পিয়ান ময়মনসিংহ। জাতীয় এবং বিশ্ব ফুটবলেও উজ্বল সাফল্য। ফুটবলের এই মেধাবী প্রজন্ম আলোকিত করেছে সীমান্তবর্তী ধোবাউড়া উপজেলার নেতাই নদের উপকণ্ঠের গ্রাম কলসিন্দুরকে। কলসিন্দুর এখন বিখ্যাত। দেশের মহিলা ফুটবলের সাফল্য এই গ্রামের আনন্দ অবদান। দেশের গন্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও এই কিশোরীরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। সাফল্যের গৌরব বয়ে এনেছেন।
বয়স ভিত্তিক দলের এই মেধাবীরা একদিন জাতীয় দলে খেলবে। মহিলা ফুটবলের ভবিষ্যৎ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানরা কৈশোরেই বিপ্লব ঘটিয়েছে।
কলসিন্দুরের ১৫ আর নান্দাইলের ৩ ফুটবলার এর দুর্দান্ত পারফমেন্স ময়মনসিংহের ক্রীড়াঙ্গনে আনন্দধারা বইয়ে দিয়েছে। অভিনন্দন-ফুটবল কন্যাদের।
আশিক চৌধুরী॥

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com