সকাল ৭:২০ | সোমবার | ২০শে মে, ২০১৯ ইং | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নুরে আলম দক্ষতার মানদন্ডে অনেক দক্ষ- পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥
‘যেতে নাহি দিব হায় তবু যেতে দিতে হয়, তবু চলে যায়’ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অমর কবিতার চরণ দিয়েই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরে আলমের বিদায় সংবর্ধনায় তার শূন্যতার অনুভবনীয় আবেগ উদ্দিপ্ত হয়ে বক্তব্য রাখছিলেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম।
বদলি জনিত কারনে ময়মনসিংহের পুলিশ প্রশাসনের সুদক্ষ ও সফল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( প্রশাসন) নুরে আলম নারায়নগঞ্জে চলে গেলেন।
বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, প্রশাসনিকসহ সর্বস্থরের পৃথক পৃথক বিদায় সংবর্ধনা শেষে সোমবার পুলিশ লাইন্সে মাসিক কল্যান সভায় ফুল, ভালোবাসা আর আবেগআপ্লুতভরে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে তাকে।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নুরে আলমের বিগত কর্মস্পৃহার প্রশংসা করে পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, ব্যবস্থাপনার কেন্দ্র বিন্দুতে প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ন দায়িত্বটি পালন করেছে নুরে আলম।


তিনি বলেন, সে দক্ষতার মানদন্ডে অনেক দক্ষ। এবং সে অর্জনও করেছে অনেক কিছু। তিনি বলেন, কাছের মানুষগুলো কাছে থাকতে বুঝা যায় না। না থাকলে তার শূন্যতা অনুভব হয়। যেমন দাত থাকলে বুঝা যায় না। না থাকলে অনুভব হয়।
তিনি বলেন, আজ থেকে আমার কাছে একটি শূণ্যতা কাজ করতে শুরু করেছে। একজন জুনিয়র এর সবচাইতে বড় আর্জন সিনিয়রকে তার উপর নির্ভরশীল করে ফেলা। সেটি নুরে আলম করতে পেরেছে। ‘আমি তার শূন্যতা অনুভব করতে শুরু করেছি’।
সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, এ দেশটা স্বাধীন করতে যারা রক্ত দিয়ে গেছে তারা আর ফিরে আসবে না। আমরা যেন তাদের আত্মত্যাগকে দেশের জন্য কাজ করে কিছুটা হলেও ঋণ সুধ করতে পারি। সে আদর্শ নিয়ে সামনে এগিয়ে যাও কামনা করি।
‘চলে যাওয়া মানে শুধু প্রস্থান নয়’ কবিতার চরন দিয়ে পুলিশ সুপার যখন তার বক্তব্য শেষ করলেন তখন দরবার হলে পিন পতন নিরবতা। আর পাশে বসে আদর্শের মানুষটির আবেগময় কবিতায় বিদায়ী অভিভাষণ যেন হৃদয়কে নিংরে দিচ্ছিল নুরে আলমের।


সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিদায়ী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরে আলম তার অনুভতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, আমি পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম এর সাথে কাজ করতে পেরে নিজেকে সার্থক মনে করি। তিনি বলেন, স্যারের পূর্ন আলো পেয়ে তা কতটুকু প্রস্ফুটিত করতে পেরেছি জানি না। চেষ্টা করেছি। শিখেছি অনেক কিছু। সে আদর্শ ধারন করে পথ চলতে চাই।
অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের সর্বস্থরের কর্মকর্তা,কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» ময়মনসিংহে ধর্মের প্রসারে পুলিশি উদ্যোগ প্রশংসিত হয়েছে

» ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগ সদস্য রাসেলকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

» তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে- ময়মনসিংহ নির্বাচন কর্মকর্তা(ভিডিও)

» ইভিএমকে ভোট ডাকাত বললেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুজ্জামান খোকন

» ২৬ নং ওয়ার্ডে ১১৫৬ ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত শফিকুল ইসলাম শফিক

» জনপ্রিয়তার নজির সাব্বির ইউনুস বাবু, বিশাল ব্যবধানে কাউন্সিলর নির্বাচিত

» ১২ নং ওয়ার্ডে ৬৩৪ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী আনিসুর রহমান আনিস

» ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয়ী কাউন্সিলর যারা

» মসিক নির্বাচনে ২ লাখ ৯৬ হাজার ৯৩৮ ভোটারের শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহন শুরু

» সিটি নির্বাচনে বিশৃঙ্খলাকারী যেই হোক ছাড় দেয়া হবেনা র‍্যাব-১৪-লেঃ কর্ণেল এফতেখার উদ্দিন

» নান্দাইলে বন্ধুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত, অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

» গৌরীপুরে আফাজ উদ্দিন শিক্ষা বৃত্তির যাত্রা শুরু

» ঠাকুগাঁওয়ে গিয়েও আলোচিত ময়মনসিংহের সাবেক ডিবি ওসি আশিকুর

» ইভিএম সম্পর্কে ১২ নং ওয়ার্ডে ঘুড়ি প্রতীকের মোটিভেশনাল প্রচারনা

» ১২ নং ওয়ার্ডে পরিবর্তন চায় এলাকাবাসী, ঘুড়ি প্রতীকে নয়া প্রত্যাশা (ভিডিও)

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় বিডি আইটি এক্সপার্ট

,

basic-bank

নুরে আলম দক্ষতার মানদন্ডে অনেক দক্ষ- পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥
‘যেতে নাহি দিব হায় তবু যেতে দিতে হয়, তবু চলে যায়’ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অমর কবিতার চরণ দিয়েই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরে আলমের বিদায় সংবর্ধনায় তার শূন্যতার অনুভবনীয় আবেগ উদ্দিপ্ত হয়ে বক্তব্য রাখছিলেন পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম।
বদলি জনিত কারনে ময়মনসিংহের পুলিশ প্রশাসনের সুদক্ষ ও সফল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( প্রশাসন) নুরে আলম নারায়নগঞ্জে চলে গেলেন।
বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, প্রশাসনিকসহ সর্বস্থরের পৃথক পৃথক বিদায় সংবর্ধনা শেষে সোমবার পুলিশ লাইন্সে মাসিক কল্যান সভায় ফুল, ভালোবাসা আর আবেগআপ্লুতভরে বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে তাকে।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নুরে আলমের বিগত কর্মস্পৃহার প্রশংসা করে পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, ব্যবস্থাপনার কেন্দ্র বিন্দুতে প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ন দায়িত্বটি পালন করেছে নুরে আলম।


তিনি বলেন, সে দক্ষতার মানদন্ডে অনেক দক্ষ। এবং সে অর্জনও করেছে অনেক কিছু। তিনি বলেন, কাছের মানুষগুলো কাছে থাকতে বুঝা যায় না। না থাকলে তার শূন্যতা অনুভব হয়। যেমন দাত থাকলে বুঝা যায় না। না থাকলে অনুভব হয়।
তিনি বলেন, আজ থেকে আমার কাছে একটি শূণ্যতা কাজ করতে শুরু করেছে। একজন জুনিয়র এর সবচাইতে বড় আর্জন সিনিয়রকে তার উপর নির্ভরশীল করে ফেলা। সেটি নুরে আলম করতে পেরেছে। ‘আমি তার শূন্যতা অনুভব করতে শুরু করেছি’।
সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, এ দেশটা স্বাধীন করতে যারা রক্ত দিয়ে গেছে তারা আর ফিরে আসবে না। আমরা যেন তাদের আত্মত্যাগকে দেশের জন্য কাজ করে কিছুটা হলেও ঋণ সুধ করতে পারি। সে আদর্শ নিয়ে সামনে এগিয়ে যাও কামনা করি।
‘চলে যাওয়া মানে শুধু প্রস্থান নয়’ কবিতার চরন দিয়ে পুলিশ সুপার যখন তার বক্তব্য শেষ করলেন তখন দরবার হলে পিন পতন নিরবতা। আর পাশে বসে আদর্শের মানুষটির আবেগময় কবিতায় বিদায়ী অভিভাষণ যেন হৃদয়কে নিংরে দিচ্ছিল নুরে আলমের।


সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিদায়ী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরে আলম তার অনুভতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, আমি পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম এর সাথে কাজ করতে পেরে নিজেকে সার্থক মনে করি। তিনি বলেন, স্যারের পূর্ন আলো পেয়ে তা কতটুকু প্রস্ফুটিত করতে পেরেছি জানি না। চেষ্টা করেছি। শিখেছি অনেক কিছু। সে আদর্শ ধারন করে পথ চলতে চাই।
অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশের সর্বস্থরের কর্মকর্তা,কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় বিডি আইটি এক্সপার্ট