রাত ১২:০৩ | মঙ্গলবার | ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভালুকা থানার ওসি মামুনের সফলতা এখানেই-বিদায় বেলায় কাঁদালেন সকলকে

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত:

ময়মনসিংহ  জেলার ভালুকা মডেল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর ও সফল ওসি মামুন-অর-রশিদ পিপিএম বদলি জনিত কারনে চলে গেলেন। বিদায় বেলা থানায় কর্মরত সকল সদস্য এমনকি গ্রাম পুলিশের সদস্যদেরও কাঁদিয়ে গেলেন তিনি।
এই বিদায়ে  উপজেলার সাধারন অসহায় হতদরিদ্র মানুষগুলোও অশ্রুশিক্ত হয়ে ওসি মামুনকে বিদায় জানান। এখানেই একজন সফল পুলিশ কর্মকর্তার পরিচয় পাওয়া যায়।

বৃহস্পতিবার (৩ মে ) দুপুরে ভালুকা মডেল থানার সভাকক্ষে গ্রাম পুলিশের উদ্যোগে বিদায় সংবর্ধণার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে মামুন-অর-রশিদকে বিদায় দেওয়ার সময় আবেগ আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন কয়েকজন গ্রাম পুলিশ।  তাদের কান্না দেখে ওসি মামুনও চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনি। এযেন এক হৃদয়বিদারক পরিস্থিতি।

ওসি মামুন ভালুকা থানায় প্রায় ৩ বছর কর্মরত ছিলেন। তার দায়িত্ব পালনকালে মাদক, সন্ত্রাস, ছিনতাইসহ অপরাধ দমনের একাধিক সফলতার প্রমান রেখেছেন।
তিনি ময়মনসিংহের শিল্প এলাকা ভালুকায় শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ব্যবসার জন্য নিরাপদ জোন করে তুলেছেন। চাঁদাবাজ সন্ত্রাস সেখানে দাঁড়াতে পারেনি।
তিনি ঢাকা ময়মনসিংহ রোডের  আতংক রোড ডাকাত চক্রকে হটিয়ে পুলিশী আদিপত্য কায়েম করতে সক্ষম হয়েছেন। উপজেলার মাদক সম্রাটদের একের পর এক গ্রেফতার ও মামলা দিয়ে জারী করেছিলেন মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশী জিরো টলারেন্স। যা সর্ব মহলে জেলা পুলিশকে দিয়েছিল সফল পুলিশের খেতাব।

ওসি মামুন জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামের নিবিড় নির্দেশনায় ভলুকা শিল্প এলাকায় সফল অভিযান চালিয়ে
নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মোজাহেদীন বাংলাদেশের জেএমবির সক্রিয় সদস্যের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছিলেন।
সেই সাথে অস্ত্র ও বোমা তৈরির বিপুল পরিমান সরঞ্জাম জব্দ করেছিলেন তিনি। উপজেলায় বিভিন্ন হত্যা মামলার মূলহোতাসহ একাদিক চিহৃিত আসামিদেরও তিনি গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে সমর্থ হয়েছিলেন।

ওসি মামুন জেলার সাবেক পুলিশ সুপার মঈনুল হক ও বর্তমান পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম এর কাছ থেকে জেলায় ১২ বার শ্রেষ্ঠ ওসির পুরস্কার নিয়েছেন। রেঞ্জ পর্যায়ে তিনি শ্রেষ্ঠ ওসি হয়েছেন ৪ বার।
আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিষ্ঠা, সততা, বিশ্বস্ততা,  অসীম সাহসিকতা, মাদক, জঙ্গি, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ নির্মূলে তিনি প্রধান মন্ত্রীর কাছ থেকে পিপিএম পদকও লাভ করেন।

তিনি জরার্জিন ভালুকা থানায়  দায়িত্ব গ্রহন করেই জেলায় দৃষ্টিনন্দন মডেল থানা করে তোলেন থানা কম্পাউন্ডকে। এখন এই থানাতে রং চুনের কাজ ব্যতীত অন্য কোন কাজ আগামী ৩০ বছর করতে হবেনা বলেও এলাকাবাসী মত প্রকাশ করেন। জেলা পুলিশের নির্দেশে তিনি সার্বক্ষণিক ছিলেন কর্তব্যপরায়ণ।
তিনি পুলিশি দায়িত্বের পাশাপাশি সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজও করেছেন। গরীব, দুঃখী, অসহায়, পঙ্গু, বিধবাদের কেও বিভিন্নভাবে আর্থিক সহযোগীতা করেছেন তিনি।
ওসি মামুন শত ব্যস্ততার মাঝেও সকলের সঙ্গে হাসিখুশি ব্যবহার করেছেন। রাজনৈতিক, সুশীল সমাজ সকলের সঙ্গে ছিলো তার সুসস্পর্ক। ওসি মামুনের সঙ্গে সাংবাদিকদের সম্পর্ক  ছিলো বন্ধুত্বপূর্ন ।

খেলাধুলাতেও তিনি ছিলেন  পারদর্শী। ঈদ এবং পূজাতে চৌকিদার, দফাদারকে বিশেষ সামগ্রী প্রদান করতেন। সেই সাথে ফকির, ভিক্ষুকদের কেও খালি হাতে ফেরাতেন না। তার এই বিদায় লগ্নে সহকর্মী, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ভালুকাবাসীর অনেক মানুষ ধরে রাখতে পারেনি চোখের পানি।

বাংলাদেশ পুলিশের গর্ব ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন অর রশিদ পিপিএম বিদায় লগ্নে বলেন, ভালুকাবাসী হয়তো একদিন আমায় ভুলে যাবে। কিন্তুু আমি ভুলবো না। ভালোলাগা আর ভালবাসার এই বন্ধন আমি সারাজীবন মরে রাখবো।

তিনি আরও বলেন, ভালুকা মডেল থানায় আমার সফলতার পিছনে অন্নতম ভূমিকা রয়েছে গ্রাম পুলিশদের।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» প্রতিবন্ধী ও অসহায়দের মাঝে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের খাবার বিতরণ

» প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে জেলা যুবলীগের বৃক্ষ রোপণ ও খাবার বিতরণ

» ময়মনসিংহের কৃষ্টপুরে নিয়ম বহির্ভূত বিল্ডিংয়ে জনদুর্ভোগ

» ময়মনসিংহে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের প্রতিবাদ সমাবেশ, মানববন্ধন

» ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশায় ত্যাগী নেতাদের নিয়ে সমালোচনার প্রতিযোগীতা

» পরাণগঞ্জে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ

» কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আগস্ট আলোচনা সভায় ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ

» দলীয় সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে সম্মেলন;একান্ত স্বাক্ষাৎকারে-সাংঠনিক সম্পাদক নাদেল

» সংগ্রাম ছাড়া, রাজপথ ছাড়া নেতা হওয়া যায়না,চক্রান্ত করা যায়- ইউসুফ খান পাঠান

» ময়মনসিংহে দোকানকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ককটেল চার্জ ৩১ আটক

» ময়মনসিংহে ফের ৮জনের মৃত্যু; মানুষ খেকো মহাসড়ক ১৪ দিনে কেড়ে নিলো ২২ প্রাণ

» ময়মনসিংহের সড়কে মৃত্যুর মিছিল! ১০ দিনের ব্যবধানে ঝরে গেল ১৫ তাজা প্রাণ

» ধোবাউড়ায় গৃহবধূর মৃত্যু; আত্মহত্যা না হত্যা তা নিয়ে ধুম্রজাল!

» ময়মনসিংহে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৭

» তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের নামে অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com

,

basic-bank

ভালুকা থানার ওসি মামুনের সফলতা এখানেই-বিদায় বেলায় কাঁদালেন সকলকে

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত:

ময়মনসিংহ  জেলার ভালুকা মডেল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর ও সফল ওসি মামুন-অর-রশিদ পিপিএম বদলি জনিত কারনে চলে গেলেন। বিদায় বেলা থানায় কর্মরত সকল সদস্য এমনকি গ্রাম পুলিশের সদস্যদেরও কাঁদিয়ে গেলেন তিনি।
এই বিদায়ে  উপজেলার সাধারন অসহায় হতদরিদ্র মানুষগুলোও অশ্রুশিক্ত হয়ে ওসি মামুনকে বিদায় জানান। এখানেই একজন সফল পুলিশ কর্মকর্তার পরিচয় পাওয়া যায়।

বৃহস্পতিবার (৩ মে ) দুপুরে ভালুকা মডেল থানার সভাকক্ষে গ্রাম পুলিশের উদ্যোগে বিদায় সংবর্ধণার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে মামুন-অর-রশিদকে বিদায় দেওয়ার সময় আবেগ আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন কয়েকজন গ্রাম পুলিশ।  তাদের কান্না দেখে ওসি মামুনও চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনি। এযেন এক হৃদয়বিদারক পরিস্থিতি।

ওসি মামুন ভালুকা থানায় প্রায় ৩ বছর কর্মরত ছিলেন। তার দায়িত্ব পালনকালে মাদক, সন্ত্রাস, ছিনতাইসহ অপরাধ দমনের একাধিক সফলতার প্রমান রেখেছেন।
তিনি ময়মনসিংহের শিল্প এলাকা ভালুকায় শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করে ব্যবসার জন্য নিরাপদ জোন করে তুলেছেন। চাঁদাবাজ সন্ত্রাস সেখানে দাঁড়াতে পারেনি।
তিনি ঢাকা ময়মনসিংহ রোডের  আতংক রোড ডাকাত চক্রকে হটিয়ে পুলিশী আদিপত্য কায়েম করতে সক্ষম হয়েছেন। উপজেলার মাদক সম্রাটদের একের পর এক গ্রেফতার ও মামলা দিয়ে জারী করেছিলেন মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশী জিরো টলারেন্স। যা সর্ব মহলে জেলা পুলিশকে দিয়েছিল সফল পুলিশের খেতাব।

ওসি মামুন জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলামের নিবিড় নির্দেশনায় ভলুকা শিল্প এলাকায় সফল অভিযান চালিয়ে
নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মোজাহেদীন বাংলাদেশের জেএমবির সক্রিয় সদস্যের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছিলেন।
সেই সাথে অস্ত্র ও বোমা তৈরির বিপুল পরিমান সরঞ্জাম জব্দ করেছিলেন তিনি। উপজেলায় বিভিন্ন হত্যা মামলার মূলহোতাসহ একাদিক চিহৃিত আসামিদেরও তিনি গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে সমর্থ হয়েছিলেন।

ওসি মামুন জেলার সাবেক পুলিশ সুপার মঈনুল হক ও বর্তমান পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম এর কাছ থেকে জেলায় ১২ বার শ্রেষ্ঠ ওসির পুরস্কার নিয়েছেন। রেঞ্জ পর্যায়ে তিনি শ্রেষ্ঠ ওসি হয়েছেন ৪ বার।
আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিষ্ঠা, সততা, বিশ্বস্ততা,  অসীম সাহসিকতা, মাদক, জঙ্গি, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ নির্মূলে তিনি প্রধান মন্ত্রীর কাছ থেকে পিপিএম পদকও লাভ করেন।

তিনি জরার্জিন ভালুকা থানায়  দায়িত্ব গ্রহন করেই জেলায় দৃষ্টিনন্দন মডেল থানা করে তোলেন থানা কম্পাউন্ডকে। এখন এই থানাতে রং চুনের কাজ ব্যতীত অন্য কোন কাজ আগামী ৩০ বছর করতে হবেনা বলেও এলাকাবাসী মত প্রকাশ করেন। জেলা পুলিশের নির্দেশে তিনি সার্বক্ষণিক ছিলেন কর্তব্যপরায়ণ।
তিনি পুলিশি দায়িত্বের পাশাপাশি সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজও করেছেন। গরীব, দুঃখী, অসহায়, পঙ্গু, বিধবাদের কেও বিভিন্নভাবে আর্থিক সহযোগীতা করেছেন তিনি।
ওসি মামুন শত ব্যস্ততার মাঝেও সকলের সঙ্গে হাসিখুশি ব্যবহার করেছেন। রাজনৈতিক, সুশীল সমাজ সকলের সঙ্গে ছিলো তার সুসস্পর্ক। ওসি মামুনের সঙ্গে সাংবাদিকদের সম্পর্ক  ছিলো বন্ধুত্বপূর্ন ।

খেলাধুলাতেও তিনি ছিলেন  পারদর্শী। ঈদ এবং পূজাতে চৌকিদার, দফাদারকে বিশেষ সামগ্রী প্রদান করতেন। সেই সাথে ফকির, ভিক্ষুকদের কেও খালি হাতে ফেরাতেন না। তার এই বিদায় লগ্নে সহকর্মী, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ভালুকাবাসীর অনেক মানুষ ধরে রাখতে পারেনি চোখের পানি।

বাংলাদেশ পুলিশের গর্ব ভালুকা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন অর রশিদ পিপিএম বিদায় লগ্নে বলেন, ভালুকাবাসী হয়তো একদিন আমায় ভুলে যাবে। কিন্তুু আমি ভুলবো না। ভালোলাগা আর ভালবাসার এই বন্ধন আমি সারাজীবন মরে রাখবো।

তিনি আরও বলেন, ভালুকা মডেল থানায় আমার সফলতার পিছনে অন্নতম ভূমিকা রয়েছে গ্রাম পুলিশদের।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com