রাত ৯:৪৪ | রবিবার | ৩১শে মে, ২০২০ ইং | ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ওসির অনুরোধে চরপাড়ায় আন্দোলন সাময়িক স্থগিত ॥ ব্যবসায়ীদের ফের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম(ভিডিওসহ)

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥

ময়মনসিংহ নগরীর চরপাড়ায় অস্ত্রবাজ, চাঁদাবাজ, মাদক সন্ত্রাস ইয়াসিন আরাফাত শাওনের গ্রেফতার দাবিতে লাগাতার আন্দোলনের অংশ হিসেবে পূর্ব ঘোষিত অনির্দিষ্টিকালের জন্য ডাকা ধর্মঘট কর্মসূচি সাময়িক স্থগিত করেছে আন্দোলনকারীরা। ময়মনসিংহ কোতোয়লী মডেল থানার ওসি মো: মাহমুদুল ইসলামের অনুরোধে আন্দোলনকারীরা ৪৮ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়ে এ ধর্মঘট স্থগিত করেন।

 

গত ২০ নভেম্বর থেকে অস্ত্রধারী চাঁদাবাজ ইয়াসিন আরাফাত শাওন এর গ্রেফতার দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে চরপাড়া এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীরা। তারই অংশ হিসেবে ১১ ডিসেম্বর অনির্দিষ্টিকালের জন্য কাফনের কাপড় পড়ে অবস্থান ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়। এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীদের যৌক্তিক আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে ১১ ডিসেম্বর দুপুরে ওসি মাহমুদুল ইসলাম চরপাড়ায় বক্তব্য রাখেন।

 

ওসি চরপাড়ায় শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষনা করে বলেন- সন্ত্রাস, মাদক, জঙ্গিবাদ সমাজে থাকতে পারেনা যখন জনগণ একত্রিত হয়ে যায়। চরপাড়া এলাকায় কোন মাদক ব্যবসায়ী মাদক বিক্রি করতে পারবে না, কোন চাঁদাবাজ চাঁদা তুলতে পারবেনা। আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিব।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসীর হাত যতই লম্বা হোক আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। আপনারা আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করবেন। তিনি সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে অভিযুক্ত শাওন এর নাম উল্লেখ্য না করে বলেন, তারা তালিকাবদ্ধ সন্ত্রাসী হিসাবে এস্টাবলিশ। তারা দুই ভাই, এক ভাই জেল হাজতে আছে। তাদের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর সিদ্ধান্তে পৌছেছি। তারা যে ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে এতে আপনাদের সাথে আমাদের কোন দ্বিমত নাই।

তিনি বলেন, আপনারা একত্রিত হয়েছেন প্রশাসনের হাত শক্তিশালী করেছেন। আমরা শাওনের বিরুদ্ধে চরম সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ব্যাপারে আপনারা নিশ্চিত থাকনে।

 

ওসি মাহমুদুল ইসলাম বলেন, সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ময়মনসিংহে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে। নির্বাচন নিয়ে আমরা ব্যস্ত থাকার করনে এ বিষয়ে বিলম্বিত হয়েছে। আমরা তার বাড়ির সিসি ক্যামেরা সিস করেছি, জিমন্যাশিয়ামে তালা দিয়েছি।
তিনি বলেন, শুধু ওই ব্যাক্তি নয়, ওই গ্রুপের কোন ব্যাক্তি এলাকায় থাকতে পারবেনা। আপনারা অনেক ধৈর্য্য ধারন করেছেন। আর একটু সময় ধের্য্যধারন করুন। নির্বাচনকে সামনে রেখে এই মুহূর্তে আপনাদের আন্দোলনে দুস্কৃতিকারীরা সুযোগ নিতে পারে। নির্বাচন বানচালে একটি চক্র ষড়যন্ত্র করছে। ধর্মঘট প্রত্যাহারে সকলের কাছে অনুরোধ জানান ওসি।

 

চরপাড়ায় পাঁচতারা হোটেল এর সামনে ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মাসুম এর সঞ্চায়নায় বক্তব্য রাখেন ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহজালাল হৃদয়, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল হক উজ্জ্বল, জেলা যুকলীগ সদস্য আসাদুজ্জামান রুমেল, ১৪ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন দুলাল,মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শরাফউদ্দিন বায়োজিত, ব্যবসায়ী নেতা আব্দুর রশিদ প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন, প্রশাসনের অনুরোধকে আমরা সম্মান জানাই। তবে অচিরেই শাওনকে গ্রেফতার না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। প্রয়োজনে আমরা ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপির কাছে অভিযোগ নিয়ে যাব।

 

১৪ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন দুলাল কোতোয়ালী থানার ওসিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, সন্ত্রাসী শাওনের গ্রেফতারের দাবিতে আমরা ১৯ নভেম্বর থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ধারাবহিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি।
তিনি বলেন,আমরা যারা আন্দোলন করছি তাদের সবমিলিয়ে একদিনে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতির হচ্ছে। তবুও আমরা এ সন্ত্রাসের কাছ থেকে মুক্তি চাই।

দুলাল বলেন, আন্দোলনের প্রথম দিন ৩ নং ফাঁড়ির ইনচার্জ সজীব সাহেব এখানে দাড়িয়ে দাপটে বলেছিলেন ২৪ ঘন্টার মধ্যে শাওনকে গ্রেফতার করতে আমরা সক্ষম হবো। তাকে আমরা স্বাগত জানিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি ২৪ ঘন্টা তো দুরে থাক আর কোন যোগাযোগই আমাদের সাথে করেননি।

তিনি বলেন, তার এ আশ্বাস ডিআইজি, পুলিশ সুপার মহোদয়ের পক্ষ থেকে বলে আমাদের ধারনা ছিল।
তিনি বলেন, প্রশাসন সংঘাতিকভাবে তৎপর রয়েছে। শুনেছি গতকাল সোহেল নামে একজন গ্রেফতার হয়েছে। কিন্তু শাওন এখনও গ্রেফতার হয়নি। তাকে অপনারা গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনলে চরপাড়াবাসী আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবে। স্বর্ণাক্ষরে আপনাদের নাম লিখে রাখবে আমরা।

 

চরপাড়া ব্যবসায়ী ও জেলা যুবলীগ সদস্য আসাদুজ্জামান রুমেল প্রশাসনকে ৪৮ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়ে বলেন, যদি এ সময়ের মধ্যে আমাদের দাবি আদায় না হয় আমরা ময়মনসিংহ বিভাগ ত্যাগ করে ঢাকায় সমবেত হবো।

তিনি বলেন, প্রয়োজনে আমরা প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপি মহোদয়ের কাছে আমাদের অভিযোগ জানাব।

তিনি বলেন, আমরা দিনরাত এক করে এ সন্ত্রাসের উৎক্ষাতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। ‘আর একশ্রেনীর নেতৃত্ব আছে চোরকে বলছে চুরি করতে, গৃহস্তকে বলছে সজাগ থাকতে।’ যারা এইসব নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের স্বরুপ উন্মোচন করা হবে বলে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বক্তব্য শেষে আন্দোলনকারীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে চরপাড়া মোড় প্রদক্ষিন করেন।

ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শরাফউদ্দিন বায়োজিদ বলেন, ময়মনসিংহের শীর্ষ সন্ত্রাসী শাওনের অত্যাচারে চরপাড়াবাসী অতিষ্ট। প্রশাসনের বার বার আশ্বাস দেয়া সত্ত্বেও কেন শাওনকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না, কি কারণে হচ্ছে না, তা আমরা জানিনা।

কোতোয়ালী মডেল থানা ওসির উপস্থিতিতে তার প্রতি প্রশ্ন রেখে বায়োজিদ বলেন, আমরা জানতে চাই কার জন্য এ সন্ত্রাসী বাহীনিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। প্রশাসনের কোন কালো হাত, কোন অদৃশ্য শক্তি আপনাদেরকে দাবিয়ে রাখছে, দয়া করে আমাদের জানিয়ে যাবেন। তিনি অচিরেই শাওনের গ্রেফতার দাবি করেন।

 

গত ১৯ নভেম্বর চরপাড়ায় সিএনজি ষ্ট্যান্ডে চাঁদাবাজী ও মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম উজ্জ্বলের বাড়িঘরে হামলা চালায়। মহানগর যুবলীগ সদস্য ইয়াসিন আরাফাত শাওনের নেতৃত্বে এ হামলা ,ভাংচুর ও গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০ নভেম্বর থেকে এলাকাবাসী ,চরপাড়া ক্লিনিক ডায়াগোষ্টিক ব্যবসায়ী, ওষুধ মালিক সমিতি, হোটেল মালিক সমিতি, রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ী, কাচাঁবাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ তার গ্রেফতার দাবিতে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

 

উল্লেখ্য, মাদক অস্ত্র সন্ত্রাসের গডফাদার ইয়াসিন আরাফাত শাওন ওরফে শাওন পারভেজ এর বিরুদ্ধে মাদক, সন্ত্রাসী, মারামারি, হত্যাসহ একাধিক মামলা থাকলেও প্রশাসন এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» মমেকে কোভিড হাসপাতাল প্রস্তাবের বিপক্ষে লিফটের বিতরণ

» মমেক হাসপাতালের নতুন ভবনে কোভিড চিকিৎসার সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী

» বেসরকারি স্বাস্থ্যকর্মীদের ঈদ উপহার নগদ অর্থ দিলেন করোনা যোদ্ধা ডা: আশিক

» আফাজ উদ্দিন সরকার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

» এসএসসি ১৯৯৯-২০০০ ব্যাচের উদ্যােগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

» মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাদার ইফতার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

» ছিন্নমূলদের মাঝে খাবার বিতরণ করলো জেলা ছাত্রলীগ নেতা নাহিদুল

» ঈদের পূর্বে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাচ্ছে না হালুয়াঘাটের ধুরাইলবাসী! ভিডিও

» বাকৃবি ২০১১-১৩ ছাত্রলীগের উদ্যোগে দরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী প্রদান

» ঈশ্বরগঞ্জে যুবলীগ নেতা মাহবুবের ঈদ উপহার পেলো ৪শ পরিবার

» দ্বিতীয় দিনে ৩শ পরিবারকে ঈদ উপহার দিলেন যুবলীগ নেতা রুমেল

» আগামীকাল থেকে নিত্যপণ্য ছাড়া সকল দোকানপাট বন্ধ থাকবে

» আনন্দমোহন কলেজ মাঠ থেকেই ছাত্রলীগ সভাপতি রকিবের ত্রাণ বিতরণ

» ঈদ উপহার নিয়ে এক হাজার পরিবারের পাশে যুবলীগ নেতা আসাদুজ্জামান রুমেল

» ঈদে কেনাকাটার টাকায় খাদ্য কিনে প্রতিবন্ধীদের দিলেন ময়মনসিংহের এসপি

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com

,

basic-bank

ওসির অনুরোধে চরপাড়ায় আন্দোলন সাময়িক স্থগিত ॥ ব্যবসায়ীদের ফের ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম(ভিডিওসহ)

বিল্লাল হোসেন প্রান্ত ॥

ময়মনসিংহ নগরীর চরপাড়ায় অস্ত্রবাজ, চাঁদাবাজ, মাদক সন্ত্রাস ইয়াসিন আরাফাত শাওনের গ্রেফতার দাবিতে লাগাতার আন্দোলনের অংশ হিসেবে পূর্ব ঘোষিত অনির্দিষ্টিকালের জন্য ডাকা ধর্মঘট কর্মসূচি সাময়িক স্থগিত করেছে আন্দোলনকারীরা। ময়মনসিংহ কোতোয়লী মডেল থানার ওসি মো: মাহমুদুল ইসলামের অনুরোধে আন্দোলনকারীরা ৪৮ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়ে এ ধর্মঘট স্থগিত করেন।

 

গত ২০ নভেম্বর থেকে অস্ত্রধারী চাঁদাবাজ ইয়াসিন আরাফাত শাওন এর গ্রেফতার দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে চরপাড়া এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীরা। তারই অংশ হিসেবে ১১ ডিসেম্বর অনির্দিষ্টিকালের জন্য কাফনের কাপড় পড়ে অবস্থান ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়। এলাকাবাসী ও ব্যবসায়ীদের যৌক্তিক আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে ১১ ডিসেম্বর দুপুরে ওসি মাহমুদুল ইসলাম চরপাড়ায় বক্তব্য রাখেন।

 

ওসি চরপাড়ায় শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষনা করে বলেন- সন্ত্রাস, মাদক, জঙ্গিবাদ সমাজে থাকতে পারেনা যখন জনগণ একত্রিত হয়ে যায়। চরপাড়া এলাকায় কোন মাদক ব্যবসায়ী মাদক বিক্রি করতে পারবে না, কোন চাঁদাবাজ চাঁদা তুলতে পারবেনা। আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিব।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসীর হাত যতই লম্বা হোক আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব। আপনারা আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করবেন। তিনি সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে অভিযুক্ত শাওন এর নাম উল্লেখ্য না করে বলেন, তারা তালিকাবদ্ধ সন্ত্রাসী হিসাবে এস্টাবলিশ। তারা দুই ভাই, এক ভাই জেল হাজতে আছে। তাদের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর সিদ্ধান্তে পৌছেছি। তারা যে ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে এতে আপনাদের সাথে আমাদের কোন দ্বিমত নাই।

তিনি বলেন, আপনারা একত্রিত হয়েছেন প্রশাসনের হাত শক্তিশালী করেছেন। আমরা শাওনের বিরুদ্ধে চরম সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ব্যাপারে আপনারা নিশ্চিত থাকনে।

 

ওসি মাহমুদুল ইসলাম বলেন, সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। ময়মনসিংহে শান্তিপূর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে। নির্বাচন নিয়ে আমরা ব্যস্ত থাকার করনে এ বিষয়ে বিলম্বিত হয়েছে। আমরা তার বাড়ির সিসি ক্যামেরা সিস করেছি, জিমন্যাশিয়ামে তালা দিয়েছি।
তিনি বলেন, শুধু ওই ব্যাক্তি নয়, ওই গ্রুপের কোন ব্যাক্তি এলাকায় থাকতে পারবেনা। আপনারা অনেক ধৈর্য্য ধারন করেছেন। আর একটু সময় ধের্য্যধারন করুন। নির্বাচনকে সামনে রেখে এই মুহূর্তে আপনাদের আন্দোলনে দুস্কৃতিকারীরা সুযোগ নিতে পারে। নির্বাচন বানচালে একটি চক্র ষড়যন্ত্র করছে। ধর্মঘট প্রত্যাহারে সকলের কাছে অনুরোধ জানান ওসি।

 

চরপাড়ায় পাঁচতারা হোটেল এর সামনে ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মাসুম এর সঞ্চায়নায় বক্তব্য রাখেন ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শাহজালাল হৃদয়, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল হক উজ্জ্বল, জেলা যুকলীগ সদস্য আসাদুজ্জামান রুমেল, ১৪ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন দুলাল,মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শরাফউদ্দিন বায়োজিত, ব্যবসায়ী নেতা আব্দুর রশিদ প্রমুখ।

 

বক্তারা বলেন, প্রশাসনের অনুরোধকে আমরা সম্মান জানাই। তবে অচিরেই শাওনকে গ্রেফতার না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে। প্রয়োজনে আমরা ঢাকায় প্রধানমন্ত্রীর,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপির কাছে অভিযোগ নিয়ে যাব।

 

১৪ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর দুলাল উদ্দিন দুলাল কোতোয়ালী থানার ওসিকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, সন্ত্রাসী শাওনের গ্রেফতারের দাবিতে আমরা ১৯ নভেম্বর থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ধারাবহিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি।
তিনি বলেন,আমরা যারা আন্দোলন করছি তাদের সবমিলিয়ে একদিনে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতির হচ্ছে। তবুও আমরা এ সন্ত্রাসের কাছ থেকে মুক্তি চাই।

দুলাল বলেন, আন্দোলনের প্রথম দিন ৩ নং ফাঁড়ির ইনচার্জ সজীব সাহেব এখানে দাড়িয়ে দাপটে বলেছিলেন ২৪ ঘন্টার মধ্যে শাওনকে গ্রেফতার করতে আমরা সক্ষম হবো। তাকে আমরা স্বাগত জানিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি ২৪ ঘন্টা তো দুরে থাক আর কোন যোগাযোগই আমাদের সাথে করেননি।

তিনি বলেন, তার এ আশ্বাস ডিআইজি, পুলিশ সুপার মহোদয়ের পক্ষ থেকে বলে আমাদের ধারনা ছিল।
তিনি বলেন, প্রশাসন সংঘাতিকভাবে তৎপর রয়েছে। শুনেছি গতকাল সোহেল নামে একজন গ্রেফতার হয়েছে। কিন্তু শাওন এখনও গ্রেফতার হয়নি। তাকে অপনারা গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনলে চরপাড়াবাসী আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবে। স্বর্ণাক্ষরে আপনাদের নাম লিখে রাখবে আমরা।

 

চরপাড়া ব্যবসায়ী ও জেলা যুবলীগ সদস্য আসাদুজ্জামান রুমেল প্রশাসনকে ৪৮ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়ে বলেন, যদি এ সময়ের মধ্যে আমাদের দাবি আদায় না হয় আমরা ময়মনসিংহ বিভাগ ত্যাগ করে ঢাকায় সমবেত হবো।

তিনি বলেন, প্রয়োজনে আমরা প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপি মহোদয়ের কাছে আমাদের অভিযোগ জানাব।

তিনি বলেন, আমরা দিনরাত এক করে এ সন্ত্রাসের উৎক্ষাতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। ‘আর একশ্রেনীর নেতৃত্ব আছে চোরকে বলছে চুরি করতে, গৃহস্তকে বলছে সজাগ থাকতে।’ যারা এইসব নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের স্বরুপ উন্মোচন করা হবে বলে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

বক্তব্য শেষে আন্দোলনকারীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে চরপাড়া মোড় প্রদক্ষিন করেন।

ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা শরাফউদ্দিন বায়োজিদ বলেন, ময়মনসিংহের শীর্ষ সন্ত্রাসী শাওনের অত্যাচারে চরপাড়াবাসী অতিষ্ট। প্রশাসনের বার বার আশ্বাস দেয়া সত্ত্বেও কেন শাওনকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না, কি কারণে হচ্ছে না, তা আমরা জানিনা।

কোতোয়ালী মডেল থানা ওসির উপস্থিতিতে তার প্রতি প্রশ্ন রেখে বায়োজিদ বলেন, আমরা জানতে চাই কার জন্য এ সন্ত্রাসী বাহীনিকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না। প্রশাসনের কোন কালো হাত, কোন অদৃশ্য শক্তি আপনাদেরকে দাবিয়ে রাখছে, দয়া করে আমাদের জানিয়ে যাবেন। তিনি অচিরেই শাওনের গ্রেফতার দাবি করেন।

 

গত ১৯ নভেম্বর চরপাড়ায় সিএনজি ষ্ট্যান্ডে চাঁদাবাজী ও মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম উজ্জ্বলের বাড়িঘরে হামলা চালায়। মহানগর যুবলীগ সদস্য ইয়াসিন আরাফাত শাওনের নেতৃত্বে এ হামলা ,ভাংচুর ও গুলি চালানো হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। ২০ নভেম্বর থেকে এলাকাবাসী ,চরপাড়া ক্লিনিক ডায়াগোষ্টিক ব্যবসায়ী, ওষুধ মালিক সমিতি, হোটেল মালিক সমিতি, রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ী, কাচাঁবাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ তার গ্রেফতার দাবিতে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে।

 

উল্লেখ্য, মাদক অস্ত্র সন্ত্রাসের গডফাদার ইয়াসিন আরাফাত শাওন ওরফে শাওন পারভেজ এর বিরুদ্ধে মাদক, সন্ত্রাসী, মারামারি, হত্যাসহ একাধিক মামলা থাকলেও প্রশাসন এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com