সন্ধ্যা ৭:০১ | বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মমেকে কোভিড হাসপাতাল প্রস্তাবের বিপক্ষে লিফটের বিতরণ

জনমত ডেক্সঃ
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনকে কোভিড হাসপাতাল করার প্রস্তাবের বিপক্ষে লিফলেট বিতরণ অব্যাহত রেখেছে আমজনতা। বিতরণকৃত লিফলেটে প্রস্তাবের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন যুক্তি উত্থাপন করা হয়েছে। যার সাথে মিল রয়েছে হাসপাতালের পরিচালনা পর্ষদের একাংশ, ময়মনসিংহ নাগরিক আন্দোলনসহ সচেতন মহলের যুক্তির। জানা গেছে, নাগরিকদের যুক্তির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ময়মনসিংহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে কথা বলেছেন সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও সদর-৪ আসনের এমপি বেগম রওশন এরশাদ।

 

 

২৮ এপ্রিল ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির এক সভায় মমেক হাসপাতালের নতুন আট তলা ভবনকে কোভিড হাসপাতাল করার প্রস্তাবনা দেয়া হয়। এ প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বরাবর চিঠিও প্রেরণ করা হয়। তবে প্রস্তাবের বিপক্ষে হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিন আহমেদ, উপ-পরিচালক ডা: লক্ষীনারায়ন মজুমদার, জেলা নাগরিক আন্দোলন সহ একাধিক সম্পৃক্ত ব্যক্তিত্ব যুক্তি উপস্থাপন করেন।

 

 

জেলায় কোভিড চিকিৎসার জন্য একাধিক জুতসই ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও বহু গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর চিকিৎসার সরঞ্জাম ব্যবস্থাপনাসহ প্রস্তুতকৃত নতুন ভবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে একটি চক্র কাজ করছে বলে মন্তব্য এসেছে। বিষয়টি ময়মনসিংহের সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে সচেতন মহলে অনেকটা স্পষ্ট হয়ে উঠলে আমজনতা এর বিপক্ষে সোচ্চার হয়ে ওঠে।

 

 

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ মে চরপাড়া একালায় প্রস্তাবের বিপক্ষে একটি মানববন্ধনের ডাক দেয়া হয়। আহুত মানববন্ধনকে ঘিরে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের প্রেক্ষিতে মানববন্ধনটি হয়নি। তবে প্রস্তাবের বিপক্ষে বিভিন্ন পর্যায়ে লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র মতে, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে নিজেদের আখের গোছানোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে একটি মহল সবসময়ই তৎপর ছিল। যাদের অতীত কার্যক্রম ময়মনসিংহের জনগণের কাছে অনেকটাই ওপেন সিক্রেট। তবে এই সিন্ডিকেটটি অনেকটাই নাজেহাল হয়ে পড়েছিল ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সদ্য সাবেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিনের কঠোর অবস্থানের কারণে। সম্প্রতি তিনি বদলীজনিত কারণে নিজ বাহিনীতে প্রত্যাবর্তন করেছেন। তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ফজলুল কবির।

 

 

সূত্র জানায়, ময়মনসিংহের জনগণের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ও চাহিদার প্রেক্ষিতে দুরারোগ্য ব্যাধি হার্টের চিকিৎসা সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসা সেবার উপযোগী করে তৈরি করা হয় নতুন আটতলা ভবনকে। যেখানে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়। যেসব চিকিৎসা ময়মনসিংহের বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে করাটা সাধারণ জনগণের জন্য অনেকটাই অসম্ভব। “মন্তব্য চলছে সরকারি ভাবে এসব চিকিৎসা ব্যাহত হলে বেসরকারি হাসপাতালগুলো এক্ষেত্রে লাভবান হবে। সরকারি হাসপাতাল সচল থাকলে তা সম্ভব নয়।”

 

 

সূত্র মতে, “এস কে হাসপাতালে যেখানে রোগীর ধারণ ক্ষমতা আছে তিনশতাধিক। বর্তমান রোগীর সংখ্যা সেখানে মাত্র অর্ধশতাধিক।’ রোগীদের চিকিৎসাসেবা সেই সাথে খাদ্যের তালিকায় যা কিছু প্রয়াজন সব কিছু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকেই সরবরাহ করা হচ্ছে। এরপরও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুটি গ্রুপের দ্বন্দ্বের কারণে প্রতিদিনই তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিহিংসা। “তাদের দ্বন্দ্বের কারনে আত্মঘাতী সিন্ধান্তের প্রতিবাদে বড় ধরনের আন্দোলনের কর্মসূচীর আশংঙ্কাও রয়েছে এই বিভাগের সচেতন নাগরীকদের মাঝে।”

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ খবর



» অনিয়ন্ত্রিত ময়মনসিংহ ছাত্রলীগ! দায় কাদের?

» প্রতিবন্ধী ও অসহায়দের মাঝে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের খাবার বিতরণ

» প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে জেলা যুবলীগের বৃক্ষ রোপণ ও খাবার বিতরণ

» ময়মনসিংহের কৃষ্টপুরে নিয়ম বহির্ভূত বিল্ডিংয়ে জনদুর্ভোগ

» ময়মনসিংহে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের প্রতিবাদ সমাবেশ, মানববন্ধন

» ছাত্রলীগের পদ প্রত্যাশায় ত্যাগী নেতাদের নিয়ে সমালোচনার প্রতিযোগীতা

» পরাণগঞ্জে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন প্রতিবাদ সমাবেশ

» কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আগস্ট আলোচনা সভায় ময়মনসিংহ জেলা ছাত্রলীগ

» দলীয় সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে সম্মেলন;একান্ত স্বাক্ষাৎকারে-সাংঠনিক সম্পাদক নাদেল

» সংগ্রাম ছাড়া, রাজপথ ছাড়া নেতা হওয়া যায়না,চক্রান্ত করা যায়- ইউসুফ খান পাঠান

» ময়মনসিংহে দোকানকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ককটেল চার্জ ৩১ আটক

» ময়মনসিংহে ফের ৮জনের মৃত্যু; মানুষ খেকো মহাসড়ক ১৪ দিনে কেড়ে নিলো ২২ প্রাণ

» ময়মনসিংহের সড়কে মৃত্যুর মিছিল! ১০ দিনের ব্যবধানে ঝরে গেল ১৫ তাজা প্রাণ

» ধোবাউড়ায় গৃহবধূর মৃত্যু; আত্মহত্যা না হত্যা তা নিয়ে ধুম্রজাল!

» ময়মনসিংহে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ৭

আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com

,

basic-bank

মমেকে কোভিড হাসপাতাল প্রস্তাবের বিপক্ষে লিফটের বিতরণ

জনমত ডেক্সঃ
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনকে কোভিড হাসপাতাল করার প্রস্তাবের বিপক্ষে লিফলেট বিতরণ অব্যাহত রেখেছে আমজনতা। বিতরণকৃত লিফলেটে প্রস্তাবের বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন যুক্তি উত্থাপন করা হয়েছে। যার সাথে মিল রয়েছে হাসপাতালের পরিচালনা পর্ষদের একাংশ, ময়মনসিংহ নাগরিক আন্দোলনসহ সচেতন মহলের যুক্তির। জানা গেছে, নাগরিকদের যুক্তির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে ময়মনসিংহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে কথা বলেছেন সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও সদর-৪ আসনের এমপি বেগম রওশন এরশাদ।

 

 

২৮ এপ্রিল ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির এক সভায় মমেক হাসপাতালের নতুন আট তলা ভবনকে কোভিড হাসপাতাল করার প্রস্তাবনা দেয়া হয়। এ প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বরাবর চিঠিও প্রেরণ করা হয়। তবে প্রস্তাবের বিপক্ষে হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিন আহমেদ, উপ-পরিচালক ডা: লক্ষীনারায়ন মজুমদার, জেলা নাগরিক আন্দোলন সহ একাধিক সম্পৃক্ত ব্যক্তিত্ব যুক্তি উপস্থাপন করেন।

 

 

জেলায় কোভিড চিকিৎসার জন্য একাধিক জুতসই ব্যবস্থা থাকা সত্ত্বেও বহু গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর চিকিৎসার সরঞ্জাম ব্যবস্থাপনাসহ প্রস্তুতকৃত নতুন ভবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে একটি চক্র কাজ করছে বলে মন্তব্য এসেছে। বিষয়টি ময়মনসিংহের সাধারণ জনগণ থেকে শুরু করে সচেতন মহলে অনেকটা স্পষ্ট হয়ে উঠলে আমজনতা এর বিপক্ষে সোচ্চার হয়ে ওঠে।

 

 

এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৮ মে চরপাড়া একালায় প্রস্তাবের বিপক্ষে একটি মানববন্ধনের ডাক দেয়া হয়। আহুত মানববন্ধনকে ঘিরে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের প্রেক্ষিতে মানববন্ধনটি হয়নি। তবে প্রস্তাবের বিপক্ষে বিভিন্ন পর্যায়ে লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্র মতে, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে নিজেদের আখের গোছানোর হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে একটি মহল সবসময়ই তৎপর ছিল। যাদের অতীত কার্যক্রম ময়মনসিংহের জনগণের কাছে অনেকটাই ওপেন সিক্রেট। তবে এই সিন্ডিকেটটি অনেকটাই নাজেহাল হয়ে পড়েছিল ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের সদ্য সাবেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাসির উদ্দিনের কঠোর অবস্থানের কারণে। সম্প্রতি তিনি বদলীজনিত কারণে নিজ বাহিনীতে প্রত্যাবর্তন করেছেন। তার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ফজলুল কবির।

 

 

সূত্র জানায়, ময়মনসিংহের জনগণের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ও চাহিদার প্রেক্ষিতে দুরারোগ্য ব্যাধি হার্টের চিকিৎসা সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসা সেবার উপযোগী করে তৈরি করা হয় নতুন আটতলা ভবনকে। যেখানে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়। যেসব চিকিৎসা ময়মনসিংহের বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে করাটা সাধারণ জনগণের জন্য অনেকটাই অসম্ভব। “মন্তব্য চলছে সরকারি ভাবে এসব চিকিৎসা ব্যাহত হলে বেসরকারি হাসপাতালগুলো এক্ষেত্রে লাভবান হবে। সরকারি হাসপাতাল সচল থাকলে তা সম্ভব নয়।”

 

 

সূত্র মতে, “এস কে হাসপাতালে যেখানে রোগীর ধারণ ক্ষমতা আছে তিনশতাধিক। বর্তমান রোগীর সংখ্যা সেখানে মাত্র অর্ধশতাধিক।’ রোগীদের চিকিৎসাসেবা সেই সাথে খাদ্যের তালিকায় যা কিছু প্রয়াজন সব কিছু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকেই সরবরাহ করা হচ্ছে। এরপরও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুটি গ্রুপের দ্বন্দ্বের কারণে প্রতিদিনই তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে পক্ষে-বিপক্ষে প্রতিহিংসা। “তাদের দ্বন্দ্বের কারনে আত্মঘাতী সিন্ধান্তের প্রতিবাদে বড় ধরনের আন্দোলনের কর্মসূচীর আশংঙ্কাও রয়েছে এই বিভাগের সচেতন নাগরীকদের মাঝে।”

Print Friendly, PDF & Email
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন : Share on Facebook
Facebook
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

সর্বশেষ খবর



এ বিভাগের অন্যান্য খবর



আমাদের সঙ্গী হোন

যোগাযোগ

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় –

২২ সি কে ঘোষ রোড, ময়মনসিংহ
বার্তা কক্ষ : ০১৭৩৬ ৫১৪ ৮৭২
ইমেইল : dailyjonomot@gmail.com

© সর্বস্বত্ব স্বাত্বাধিকার দৈনিক জনমত .কম

কারিগরি সহযোগিতায় BDiTZone.com